A Red Lightঃঃ নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প

A Red Lightঃঃ নিষিদ্ধ

A Red Lightঃঃ নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প

মোঃ মাসুদ রানা

,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,

মা-মা বলে ডাক চিৎকার করতেই ঘুম ভেঙ্গে যায় অসুস্থ বাবার। শনিবার দিন রাতের কোনো এক সময় মায়ের বিছানা ছেড়ে উঠে যেতেই টের পেয়ে যায় শিশু কন্যা মুন্নী। শিশু কন্যা মুন্নী বারবার শুধু বলতে থাকে মা কোথায়? মা আসছে না কেন? হয়তো অবুঝ শিশু কন্যা মুন্নী নিজেও সেদিন বুঝতে পেরেছিল।

প্রতিদিনের মতোই বাবা-মার পাশে ঘুমিয়ে ছিল তিন বছরের বছরের শিশু কন্যা মুন্নী। কনকনে শীতে ঠাণ্ডাজনিত জ্বর অসুখে ভুগছিলেন তার বাবা রতন। কিন্তু এরই মাঝে ঘুমিয়ে থাকা শিশু কন্যা ও স্বামীকে রেখে পালিয়ে যাবার সুযোগ খুঁজছিলেন মা শান্তনা বেগম।

সেদিন শনিবার রাতে শিশু কন্যা মুন্নীর কান্নায় ঘুম ভেঙ্গে যায় রতনের। প্রকৃতির ডাকে বাইরে গিয়েছে বলে প্রথমত ভেবেছিল সে। কিন্তু আধা ঘণ্টা অপেক্ষার পর তার না ফেরা দেখে ভয় পেয়ে যান তিনি। ভেবেছিলেন কোন দূর্ঘটনা ঘটেছে। তারপর টর্চ লাইট নিয়ে একা একা বাইরে খুঁজতে বের হয় রতন। কিন্তু সারা রাত ধরে খোঁজ করেও শান্তনা বেগমের কোন সন্ধান পায়নি রতন। পরে সকাল হলে খোঁজখবর নিয়ে জানা যায় শান্তনা বেগম তার খালাতো ভাই সবুজের হাত ধরে পালিয়েছে। হয়তো অজানা কোন সুখের উদ্দেশে পাড়ি জমিয়েছে মাতৃত্বের সম্পর্ক ছিন্ন করে। হয়তো আকাশ পরিমাণ ভালোবাসার জন্য শিশু কন্যা মুন্নীকেও ছেড়ে আসতে একটুও বুক কাঁপেনি শান্তনা বেগমের।

শান্তনা বেগম চলে যাওয়ার পর একই গ্রামের আজমল আলীর ছেলে সবুজের কোন সন্ধান না পেয়ে তাদের পরকীয়ার বিষয়টি গোটা গ্রামে ছড়িয়ে যায়।

শনিবার রাতে খাবার খেয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে গেছে সবুজ। পরে আর বাড়ি ফেরেনি। এক পর্যায় ফোন করেও কোন খোঁজখবর পায়নি সবুজের পরিবারের লোকজন।

আত্মীয়তার সূত্র ধরে বাড়িতে উঠা-বসা করতো সবুজ। সেই সূত্র ধরে কখন যে তারা একে অপরের প্রেমে পরেছে এবং পরকীয়ায় জড়িয়েছে বুঝে উঠতে পারেননি রতন আর তার মা।

শিশু মুন্নী দাদী মরিয়মের কোলে চরে এদিক-ওদিক তাকিয়ে কি যেন দেখে চোখ ফিরিয়ে নিচ্ছে। মুন্নী মাঝে মাঝে মা-মা ডেকে কান্না কাটি করে চলেছে। মায়ের সেই পরম মমতা ছাড়া এখন আর কোনো কিছুই ভালো লাগছে না ছোট্ট শিশু কন্যা মুন্নীর। ডানাবিহীন পাখির মতই শুধু পথের দিকে চেয়ে রয়েছে। কখন মা আসবে। কখন মা আদর করে কোলে তুলে নিবে। দুষ্টামিতে খিলখিল করে হেসে উঠবে।

তবুও মিথ্যা আশ্বাসে ‘মা আসছে’ বলে শিশুটিকে সান্ত্বনা দেওয়ার বৃথা চেষ্টা করছেন শিশুটির দাদী। শুধু মুন্নী নয়, শাশুড়ি মরিয়মের চোখেও অশ্রুর বন্যা বাসা বেঁধেছে। মুন্নীর বাবা রতনের চোখে মুখেও বিষন্নতার ছাপ দেখা যায়।

অসুস্থ রতন অবুঝ শিশুকে নিয়ে খুবই বিপাকে পরেছেন। স্ত্রী চলে যাওয়ায় সে খুবই মর্মাহত হয়েছে। অবুঝ শিশু কন্যা মুন্নীকে কি করে বোঝাবেন, তার মা তাকে ফেলে রেখে, না বলে রাতের অন্ধকারে মনের মানুষকে নিয়ে সুখ খুঁজতে চলে গেছে।

Like us on Facebook Page

Join us on Facebook Group

Contact us on web

Subscribe now to get newsletter

    5 thoughts on “A Red Lightঃঃ নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প

    মন্তব্য করুন

    Translate »
    %d bloggers like this: